1. freelencershakil72@gmail.com : Sr Shakil : Sr Shakil
  2. durantotv28@gmail.com : anamul Haque : anamul Haque
  3. loggershell443@gmail.com : yanz@123457 :
সুন্দরগঞ্জে যৌতুক মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু ১০অক্টোবর। - দুরান্ত টিভি
June 23, 2024, 10:39 am
শিরোনাম :
আরব আমিরাতে হুদায়বিয়া রেস্টুরেন্টের হলরুমে মরহুম জহিরুল ইসলামের স্মরণে দোয়া মাহফিল।  ১ আগস্ট শুরু হচ্ছে পিরোজপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচ এর ক্লাশ শুরু কুষ্টিয়াতে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে ফুলের শুভেচ্ছা। আওয়ামীলীগ অফিসে সন্ত্রাসী হামলা-ভাঙচুর-প্রতিবাদে দলীয় নেতা কর্মীদের মানববন্ধন নাটোরের লালপুরে ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত ঈদের উৎসবে নতুন মাত্রা যোগ করেছে উম্মুক্ত সাঁতার প্রতিযোগিতা আমতলীতে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাস ব্রিজ ভেঙে খালে পড়ে নিহত ৯ নিখোঁজ ২জন প্রবাসী কর্ণফুলী ক্রিয়া পরিষদ আয়োজিত ত্রি-দেশীয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট সম্পন্ন বটিয়াঘাটাতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন লক্ষ্মীপুরে কিশোরী অপহরণ মামলায় গ্রেফতার ২জন

সুন্দরগঞ্জে যৌতুক মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু ১০অক্টোবর।

হারুন অর রশিদ রাজু- সুন্দরগঞ্জ গাইবান্ধা প্রতিনিধি।
  • সময়: Wednesday, August 17, 2022,
  • 150 Time View

সুন্দরগঞ্জে যৌতুক মামলায় ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু ১০অক্টোবর।

যৌতুক মামলায় মেনাজ চৌধুরী মিন্টু নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছেন আদালত।সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালত,সুন্দরগঞ্জ,গাইবান্ধার বিজ্ঞ বিচারক মোঃ মেহেদী হাসান গত ২১জুলাই চার্জ গঠন করেন। আগামি ১০ অক্টোবর/২২ এ মামলার সাক্ষ গ্রহণের দিন ধার্য্য করেছেন আদালত।

চার্জ গঠনের দিন শুনানী অন্তে ব্যাংক কর্মকর্তা মেনাজ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের যৌতুক নিরোধ আইনের ৩ ধারায় অভিযোগ গঠন করা হয়। অপর বিবাদি ব্যাংক কর্মকর্তার পিতা-মাতার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের পর্যাপ্ত উপাদান না থাকায় তাদেরকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন বিজ্ঞ বিচারক।মেনাজ চৌধুরী সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়নের কালিরখামার গ্রামের ফেরদৌসুর রহমানের ছেলে।তিনি বর্তমানে জামালপুর জেলার যমুনা সার কারখানা শাখা সোনালী ব্যাংকে ক্যাশ অফিসার পদে কর্মরত আছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড গোপালচরন মহল্লা্র আবু সোলায়মান সরকারের কন্যার সাথে পারিবারিকভাবে ২০২০ সালের ১৩আগষ্ট ১৮লক্ষ ৫০হাজার এক টাকা দেনমোহর ধার্য্যে মুসলিম শরাশরীয়ত মোতাবেক রেজিষ্ট্রিকৃত বিয়ে হয় মেনাজ চৌধুরীর। বিয়ের সময় সোলায়মান সরকার কন্যাকে ৩লক্ষ ৫০হাজার টাকার ৫ভরি স্বর্ণালংকার ও জামাতাকে ৮লক্ষ টাকা উপহারস্বরুপ দেন কিন্তু বিয়ের পর ঘর-সংসার করাকালে স্ত্রীকে অপছন্দ করে দৈহিক,মানসিক নির্যাতন ও জ্বালা-যন্ত্রণা করে মেনাজ চৌধূরী। একপর্যায়ে স্ত্রীকে তার বাবার কাছ থেকে যৌতুক বাবদ ১০লক্ষ টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।মেনাজের দাবিকৃত যৌতুকের টাকা এনে দিতে অপারগতা জানালে বিয়ের দুই মাসের মাথায় তার স্ত্রীকে একবস্ত্রে বাড়ি থেকে বের করে দেন। বাধ্য হয়ে ওই গৃহবধূ তার বাবার বাড়িতে গিয়ে অবস্থান করতে থাকেন।এরপর কোন ভরন-পোষন ও খেঁাজ-খবর না নেওয়ায় গৃহবধূ বাদি হয়ে বিজ্ঞ আমলী আদালত, সুন্দরগঞ্জ,গাইবান্ধায় ২০১৮ সালের যৌতুক নিরোধ আইনের ৩ ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং সিআর ৩৫০/২০

এব্যাপারে ব্যাংক কর্মকর্তা মেনাজ চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, যমুনা সার কারখানা শাখা,জামালপুরে ক্যাশ অফিসার হিসেবে কর্মরত থাকার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন আপনি যা সত্য মনে করেন তাই লেখেন।বাদির আইনজীবী নিরঞ্জন কুমার ঘোষ মুঠোফোনে বলেন আদালত এ মামলায় আগামি ১০ অক্টোবর সাক্ষ গ্রহণের দিন ধার্য্য করেছেন।

হারুন অর রশিদ রাজু
প্রতিনিধি
সুন্দরগঞ্জ,গাইবান্ধা,
০১৭৪০১৫৬২১৩

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খরব
এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা,ছবি,অডিও,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। © All rights reserved © 2023
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Smart iT Host
x