April 21, 2024, 2:19 pm
শিরোনাম :
পাটগ্রামে ট্রেনের ধাক্কায় এক যুবকের মৃত্যু দিনাজপুর বিরামপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত দিনাজপুর বিরামপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে পিরোজপুরের বিভিন্ন থানা থেকে চুরি হওয়া ৩৪ মোবাইল ফোন মালিককে ফেরত দিলো পুলিশ সুপার রোজাদার ব্যাক্তিদের পাঁচ বছর ধরে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করে আসছে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক পিরোজপুরের সুমন সিকদার পিরোজপুরে আজমল হুদা নিঝুম এর ব্যাক্তিগত সহায়তায় হিলফুল ফুজুল রমজান মাস ব্যাপী টানা ইফতার বিতরণ রায়পুর চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিএফের চাউল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে প্রশাসনকে পিটিয়ে ফাঁড়ির থেকে ছেলেকে নিয়ে গেলেন এমপি বগুড়া সদরের মাটিডালীতে যুব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ পিরোজপুরে পুলিশ পদে চাকুরি পেয়েছে ২৮ জন

লৌহজংয়ে কনকসার ইউনিয়ন পরিষদে সুস্থ হয়ে ফিরলেন গ্রাম পুলিশ লায়লা।

আ স ম আবু তালেব-মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।
  • সময়: Wednesday, November 23, 2022,
  • 48 Time View

লায়লা বেগম।বয়স প্রায় একচল্লিশ।পেশায় তিনি গ্রাম পুলিশ।মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কনকসার ইউনিয়নের দক্ষিণ মশদগাঁও গ্রামের মৃত. মিজান খানের সহধর্মিণী তিনি।জীবনযুদ্ধে এক জয়ী সৈনিক।

তিনি কনকসার ইউনিয়ন পরিষদে ২০১৪ সালে গ্রাম পুলিশের চাকুরিতে যোগদান করেন,২০২১ সালের অক্টোবর মাসে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন।পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখা যায় হার্টের বাল্প নষ্ট হয়ে গিয়েছে।তখনকার ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ লায়লার প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা করান। এরপর নতুন চেয়ারম্যান বিদ্যুৎ আলম মোড়ল ও আবুল কালাম আজাদ মিলে লায়লার চিকিৎসার জন্য স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলেন।প্রায় ৫ লাখ টাকা খরচ করে তার চিকিৎসা করানো হয়। এবং সে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে পরিষদে আসছেন গতকাল সকালে।তাকে ফুলের শুভেচ্ছা দিয়ে বরণ করেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিদ্যুৎ আলম মোড়ল,ইউপি সচিব মো.মকসুদ মিয়া(মেহেদী), ইউপি সদস্য,সংরক্ষিত সদস্যসহ তার সহকর্মীরা।

জানা যায়, দীর্ঘ ৯ মাস চিকিৎসা শেষ কর্মস্থলে ফিরলেন তিনি।মিরপুরের ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয় তাকে।প্রায় ৫ লাখ টাকা খরচ হয়েছে।বর্তমানে প্রতিমাসে ১০ হাজার করে টাকা লাগে ঔষধ ও পরীক্ষা নিরীক্ষা করার জন্য।

লায়লা বেগম জানান, আমি ভিষণ খুশি।আজ আবার দীর্ঘ ৯ মাস পরে কর্মস্থলে ফিরলাম। সবচেয়ে বড় কথা হলো আমি মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছিলাম।পরিষদ ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় আজ আমার চিকিৎসা হয়েছে।তারা আমার চিকিৎসা না করালে আমি হয়তো আর বেঁচে উঠতে পারতাম না।তাই বিশেষ ধন্যবাদ চেয়ারম্যান স্যারকে।সে সাথে যারা যারা আমার চিকিৎসায় সহযোগিতা করেছেন তাদেরকে।

ইউপি চেয়ারম্যান বিদ্যুৎ আলম মোড়ল বলেন, আমি পরিষদে এসে শোনলাম আমাদের পরিষদের গ্রাম পুলিশ লায়লা বেগম অসুস্থ।খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারি তার হার্টের বাল্প নষ্ট হয়ে গিয়েছে। দ্রুত চিকিৎসা না করানো গেলে লায়লার অবস্থা অবনতির দিকে চলে যাবে।তাই আমরা পরিষদের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেই।সে সাথে স্থানীয় ব্যক্তিদের সাথে কথা বলি তাদের সহযোগিতায় চিকিৎসা করতে সক্ষম হই।

আমাদের মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের অভিভাবক অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি আপা এক লাখ টাকা,এ্যাবা গ্রুপের চেয়ারম্যান সাতঘড়িয়া গ্রামের কৃতি সন্তান সাজ্জাদুর রহমান মৃধা(শিপন) ভাই এক লাখ টাকা দিয়ে সহযোগিতা করেছেন।সে সাথে আরও অনেকের সহযোগিতায় চিকিৎসা করতে সক্ষম হই।

তিনি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আরও জানান, আজ লায়লার পাশে বিত্তবান মানুষ যেভাবে এসে দাঁড়িয়ে।সমাজের এমন অসহায় মানুষের পাশে যদি যে যার সমর্থ অনুযায়ী সহযোগী করে তাহলে সকল অসহায় লায়লা সুস্থ হয়ে যাবে।তাদের মুখে হাসি ফিরে আসবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খরব
এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা,ছবি,অডিও,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। © All rights reserved © 2023
ডিজাইন - রায়তা-হোস্ট সহযোগিতায় : SmartiTHost
durantotv24