February 25, 2024, 4:09 am
শিরোনাম :
গংগাচড়া স্মার্ট প্রেসক্লাবের সভাপতি আজমীর,সাধারণ সম্পাদক সাগর রাঙ্গাবালীতে মৎস্য ব্যবসায়ী রাশেদ হত্যাকারীর ফাঁসির দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন। ভোলায় কিশোর গ্যাংয়ের হাতে হত্যার ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা পাইকগাছায় ব্রততী রায় শিশু ও প্রতিবন্ধী কল্যাণ ট্রাস্ট এর ২৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন ও প্রতিবন্ধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত। স্বদেশ সাংস্কৃতিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে দৈনিক কলম কথা স্টাফ রিপোর্টার মোঃ এনামুল হক স্বীকৃতিস্বরূপ গুনীজন সম্মাননা-২৪ মনোনীত করেছেন। ভোলার আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী তেল কবির সহ আটক-২জন। স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা কাজী মোখতারের সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছেন-রবিন চৌধুরী বগুড়ায় আগুনে পুড়ে একবৃদ্ধা সহ গবাদীপশুর মর্মান্তিক মৃত্যু। নড়াইলের নড়াগাতীতে ইজিবাইক মালিক সমিতি কর্তৃক সাংবাদিক হেনস্তার অভিযোগ।

নড়াইলে জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্ধ নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা।

আবু তাহের আলী-নড়াইল সিনিয়র রিপোর্টার
  • সময়: Monday, September 26, 2022,
  • 176 Time View

নড়াইলে জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্ধ নিয়ে জেলা প্রশাসকের হলরুমে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ ফয়জুল আমির লিটুর সমর্থকদের উপর হামলার অভিযোগ ওঠেছে।এ সময় কমপক্ষে ৮জন আহত হয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে।সোমবার(২৬সেপ্টেম্বর)দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।আওয়ামীলীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসের সমর্থকদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ ওঠে।

জানা গেছে,সোমবার বেলা ১১টার সময় নড়াইল জেলা প্রশাসকের হলরুমে প্রতীক বরাদ্দ শুরু হয়।প্রথমে সংরক্ষিত মহিলা ও পরে পুরুষ ওয়ার্ডের শুরু হয়।দুপুর ১২টার দিকে জেলা প্রশাসকের হলরুমের পূর্বপাশে সৈয়দ ফয়জুল আমীর লিটুর প্রস্তাবকারী নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের সদস্য মোঃ শরিফুল ইসলাম ও সমর্থনকারী কাশিপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য সৈয়দ নওয়াব আলী বসে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সুবাস চন্দ্র বোসের সমর্থকরা তাদের মারপিট শুরু করে। এতে কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়।

এ সময় তারা জেলা প্রশাসকের হলরুমের চেয়ার ভাঙচুর চালায় বলেও অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।এবিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ ফয়জুল আমীর লিটু বলেন,আমার অনুপস্থিতিতে আমার প্রতীক আনতে যান আমার প্রস্তাবকারী,সমর্থনকারীসহ আমার পক্ষের লোকজন। জেলার সর্বোচ্চ নিরাপত্তাস্থল জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আমার লোকজনকে মারপিট করেছে।এতে ৮জন আহত হয়। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট সুবাস বোস বলেন,আমি আনারস প্রতীক চেয়েছি। অপরদিকে সৈয়দ ফয়জুল আমীর লিটুও আনারস চায়।তখন লিটুর লোকজন বলে ওঠে আমরা যদি আনারস না পাই তাহলে কেন এসেছি। এ কথা শোনার পরে আমার লোকজনের সঙ্গে সামান্য হাতাহাতি ধাক্কাধাক্কি হয়।বিদ্রোহী প্রার্থী সৈয়দ ফয়জুল আমীর লিটুর লোকজনের উপর হামলা ও হলরুমের চেয়ার ভাঙচুরের বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ হাবিবুর রহমান বলেন,প্রার্থী যদি লিখিত অভিযোগ করে তাহলে আমরা বিধি অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খরব
এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা,ছবি,অডিও,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। © All rights reserved © 2023
ডিজাইন - রায়তা-হোস্ট সহযোগিতায় : SmartiTHost
durantotv24